আন্তর্জাতিক

আদিবাসী মেলায় অভিনব চুম্বন প্রতিযোগিতা, বিতর্কের ঝড়

ভারতের ঝাড়খণ্ডের পাকুড়ের আদিবাসী মেলায় চুম্বন প্রতিযোগিতা ঘিরে বিতর্ক তুঙ্গে। ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিক্ষোভ থেকে শুরু করে আয়োজক বিধায়কের কুশপুতুলও দাহ করা হয়েছে বলে আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়। দাবি উঠেছে, বিধায়ককে ক্ষমা চাইতে হবে। বিতর্কের রেশ ছড়িয়ে পড়েছে বিধানসভার অধিবেশনেও। এই চুম্বন প্রতিযোগিতা আদিবাসীদের সংস্কৃতি-বিরোধী- এ অভিযোগে মঙ্গলবার পাকুড়ে বিক্ষোভ করে প্রতিযোগিতার আয়োজক লিট্টিপাড়ার বিধায়ক সাইমন মারান্ডিরই নিজের দল ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা। সেই বিক্ষোভে যোগ দেয় বিজেপিও। এদিন পাকুড়ে সাইমন মারান্ডির কুশপুতুল দাহ করে ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা সমর্থিত অল ঝাড়খণ্ড স্টুডেন্ট ইউনিয়ন ও বিজেপি সমর্থিত কিষান মোর্চা। স্থানীয় ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার নেতাদের দাবি, সাইমন মারান্ডিকে দল থেকে বহিষ্কার করে গ্রেফতার করতে হবে। বিজেপির অভিযোগ, সহজ সরল আদিবাসীদের পুরষ্কার হিসাবে টাকার লোভ দেখিয়ে এই খেলার আয়োজন করেছেন বিধায়ক। সে জন্য সাইমনকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে।

এই বিতর্কের আঁচ পড়ে ঝাড়খণ্ড বিধানসভার শীতকালীন অধিবেশনের শেষেও। এ দিন ছিল ঝাড়খণ্ড বিধানসভার শীতকালীন অধিবেশনের প্রথম দিন। ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার পূর্ব সিংভূম জেলার বেহেরাগোড়ার বিধায়ক কুণাল সারেঙ্গি বিধানসভার অধিবেশনের শেষে সাংবাদিকদের জানান, বিষয়টি নিয়ে তাদের দল বৈঠক বসছে। তবে এ সব বিতর্কের মধ্যেও এই প্রতিযোগিতার সমর্থন করেছেন বিধায়ক সাইমন মারান্ডি। এই প্রতিযোগিতা আয়োজনের সমর্থনে নিজের যুক্তিও দিয়েছেন তিনি। সাইমন বলেন, ‘আদিবাসী সমাজে একাধিক বিয়ের প্রবণতা রয়েছে। একাধিক বিয়ে নয়, এক বারই বিয়ে করো এবং স্ত্রীকে গভীর ভাবে ভালবাস- এই বার্তা ছড়াতেই এই চুম্বন প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছি। পাকুড়ের লিট্টিপাড়ার ডুমুরিয়া গ্রামে আদিবাসীদের সিধু কানু মেলায় রবিবার রাতে নানা ধরনের খেলার সঙ্গে ছিল চুম্বন প্রতিযোগিতাও। বেশ কয়েক জন আদিবাসী প্রতিযোগী এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন। তার পর থেকেই শুরু হয় বিতর্ক। যা এদিন পরিণত হয় বিক্ষোভে।

ফেসবুক মতামত

জন মত দিয়েছেন

Show Buttons
Hide Buttons

সর্বশেষ খবর জানতে ফেসবুক এ আমাদের সাথে থাকুন

আমরা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন খবর সংগ্রহ করে থাকি আপনারই জন্য। আমরা চাই আপনারা জানুন "সদ্য সংবাদ, সবার আগে"।


সর্বশেষ খবর জানতে ফেসবুক এ আমাদের সাথে থাকুন

আমরা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন খবর সংগ্রহ করে থাকি আপনারই জন্য। আমরা চাই আপনারা জানুন "সদ্য সংবাদ, সবার আগে"।