খেলা

এখন বোলাররাও পরবেন হেলমেট

ক্রিস গেইল ক্রিজে। বোলার বল ছুড়লেন। দানবীয় শক্তি দিয়ে বোলারের সোজা মারলেন গেইল। বেচারা বোলার মাথাটা নড়ানোরও সময় পেলেন না। দৃশ্যটা কাল্পনিক, তবে অসম্ভব নয়। টি-টোয়েন্টির পর এখন টি-টেনের যুগে প্রবেশ করেছে ক্রিকেট। বলটাকে পেটানোই যেখানে একমাত্র কাজ। এমন যুগে বলের আঘাতে বোলাররাও তো নিরাপদ নন। ব্যাটসম্যানের পর আম্পায়াররাও বলের আঘাত থেকে নিজেদের রক্ষা করতে ব্যবহার করছেন বিশেষ ধরনের গার্ড। আর বোলাররা তো ব্যাটসম্যানের সবচেয়ে কাছে থাকেন। আম্পায়ার অন্তত নড়াচড়ার সুযোগ পান, বোলাররা তো অনেক সময় সেটাও পান না। মালিঙ্গা, সিভিল কৌশিক, ফিদেল অ্যাডওয়ার্ডসের মতো বোলার, যারা বল করার সময় মাথাটাকে একটু বেশিই নিচের দিকে নিয়ে যান, তাঁরা তো আরো বেশি বিপদের মধ্যে থাকেন। তাই এবার বোলারদের জন্য এলো বিশেষ ধরনের হেলমেট। কিছুদিন আগে ইংল্যান্ডের ন্যাটওয়েস্ট ট্রফি টি-টোয়েন্টিতে মাথায় বলের আঘাত পান ইংলিশ পেসার লুক ফ্লেচার। এই ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত আঘাত থেকে বোলারদের মাথা বাঁচাতে বিশেষ এক হেলমেট নিয়ে এলেন নিউজিল্যান্ডের বোলার ওয়ারেন বার্নস। নিউজিল্যান্ডের ঘরোয়া ক্রিকেটের আসর সুপার স্ম্যাশ টি-টোয়েন্টি ট্রফিতে নতুন এক ধরনের হেলমেট পরে বোলিং করেন তিনি। এটি দেখতে বেসবল আম্পায়ার ও সাইক্লিস্টদের হেলমেটের মতো। বোলারদের বিশেষ এই হেলমেটটি হেডগিয়ার নামেও পরিচিত।

ওটেগো ভোল্টসের বোলার ওয়ারেন বার্নস ও কোচ রব ওয়াল্টার এই হেলমেট আবিষ্কার করেছেন। সম্প্রতি এই প্রতিযোগিতায় বলের আঘাত পান কিউই পেসার নেইল ওয়াগনার। বল এসে তাঁর পায়ে লাগে। এরপরই চিন্তিত হয়ে পড়েন বার্নস। কারণ, বল করার সময় মাথায় অনেকটাই নিচু হয়ে যায় তাঁর। কোচ ওয়াল্টারের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেন তিনি। এরপরই দুজন মিলে এই হেড গিয়ারের নকশা করেন। এই হেড গিয়ার পরে বল করতে কোনো সমস্যা হয়নি বার্নসের। নর্দান নাইটসের বিপক্ষে ৩৩ রানে তিন উইকেট নেন এই পেসার। ১৯৭০ সালের পর থেকে ক্রিকেটে হেলমেট পরার প্রচলন হয়। ২০১৪ সালে বলের আঘাতে অস্ট্রেলীয় ব্যাটসম্যান ফিল হিউজের মৃত্যুর পর ব্যাটসম্যানদের হেলমেটে বাড়তি সুরক্ষা যুক্ত করার আদেশ দেয় আইসিসি। এরপর আম্পায়াররাও বলের আঘাত থেকে নিজেদের রক্ষা করতে ব্যবহার করছেন বিশেষ ধরনের বর্ম। এবার বোলারদের পালা।

ফেসবুক মতামত

জন মত দিয়েছেন

Show Buttons
Hide Buttons

সর্বশেষ খবর জানতে ফেসবুক এ আমাদের সাথে থাকুন

আমরা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন খবর সংগ্রহ করে থাকি আপনারই জন্য। আমরা চাই আপনারা জানুন "সদ্য সংবাদ, সবার আগে"।


সর্বশেষ খবর জানতে ফেসবুক এ আমাদের সাথে থাকুন

আমরা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন খবর সংগ্রহ করে থাকি আপনারই জন্য। আমরা চাই আপনারা জানুন "সদ্য সংবাদ, সবার আগে"।