জাতীয়

দেশসেবায় আত্মনিয়োগে নৌসেনাদের প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার

দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় আত্মনিয়োগ করতে নৌবাহিনীর নবীন কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ রোববার সকালে চট্টগ্রামের পতেঙ্গায় নেভাল একাডেমিতে নবীন কর্মকর্তাদের কমিশনিং অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ আহ্বান জানান। নৌবাহিনীর নবীন কর্মকর্তাদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘তোমরা এ দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষার দায়িত্বে আত্মনিয়োগ করবে। একটি সুশৃঙ্খল বাহিনীর সদস্য হিসেবে সর্বদা ঊর্ধ্বতনদের প্রতি আনুগত্য ও অধস্তনদের প্রতি সহমর্মিতা প্রদর্শন করবে। চেইন অব কমান্ড মেনে চলার মধ্য দিয়ে নৌবাহিনীকে বিশ্ব দরবারে আরো গৌরবোজ্জ্বল আসনে অধিষ্ঠিত করতে সক্ষম হবে।’ নৌবাহিনীর জন্য আধুনিক সব সুবিধার ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলেও জানান শেখ হাসিনা।

তিন বছর মেয়াদি মিডশিপম্যান কোর্স সন্তোষজনকভাবে সম্পন্ন করার মাধ্যমে এ বছর ২১ নারীসহ ১০৪ জন কর্মকর্তা নৌবাহিনীতে কমিশনিং লাভ করেন। এ উপলক্ষে আয়োজন করা হয় শীতকালীন রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজের। সেখানে অংশ নিতে বেলা ১১টায় চট্টগ্রামের নেভাল একাডেমিতে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নৌঘাঁটিতে এসে পৌঁছলে প্রধানমন্ত্রীকে নৌবাহিনীপ্রধান অ্যাডমিরাল নিজামউদ্দিন আহমেদ এবং চট্টগ্রাম অঞ্চলের কমান্ডার রিয়ার অ্যাডমিরাল এম আবু আশরাফ তাঁকে স্বাগত জানান। সেখানে পৌঁছেই প্যারেড পরিদর্শন করেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর রাষ্ট্রীয় আনুষ্ঠানিকতার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীকে সশস্ত্র সালাম জানান কমিশন পাওয়া নবীন কর্মকর্তারা। পরে বক্তব্যে দুর্যোগ-পরবর্তী সময়ে ত্রাণ ও পুনর্বাসন কার্যক্রমে নৌবাহিনীর ভূমিকার প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী। দেশকে উন্নত দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে বর্তমান সরকারের নেওয়া পরিকল্পনার কথা তুলে ধরে, এই অগ্রযাত্রায় নৌবাহিনীর সদস্যদেরও যথাযথ ভূমিকা পালনের আহ্বান জানান শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী অনুষ্ঠানে তিন বছরে প্রশিক্ষণে সব বিষয়ে সর্বোচ্চ মান অর্জনকারী ক্যাডেটকে ‘সোর্ড অব অনার’ প্রদান করেন। ২০১৫ ব্যাচের সোহানুর রহমান সব বিষয়ে সর্বোচ্চ মান অর্জন করে প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে ‘সোর্ড অব অনার’ লাভ করেন। এ ছাড়া অনুষ্ঠানে বিশেষ কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে মিডশিপম্যান সীমান্ত নন্দী আকাশ ‘নৌবাহিনীপ্রধান স্বর্ণপদক’ এবং ডাইরেক্ট এন্ট্রি অফিসার অ্যাক্টিং সাব-লেফটেন্যান্ট এ জেড এম নাসিমুল ইসলাম ‘বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ রুহুল আমিন স্বর্ণপদক’ গ্রহণ করেন। পরে প্যারেড কমান্ডার নবীন অফিসারদের শপথ গ্রহণ করান।
অনুষ্ঠানে মন্ত্রিপরিষদ সদস্য, জাতীয় সংসদের সদস্য, তিন বাহিনী প্রধানগণ, সরকারের পদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তা, কূটনৈতিক এবং আমন্ত্রিত অতিথিরা উপস্থিত ছিলেন।

ফেসবুক মতামত

জন মত দিয়েছেন

Show Buttons
Hide Buttons

সর্বশেষ খবর জানতে ফেসবুক এ আমাদের সাথে থাকুন

আমরা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন খবর সংগ্রহ করে থাকি আপনারই জন্য। আমরা চাই আপনারা জানুন "সদ্য সংবাদ, সবার আগে"।


সর্বশেষ খবর জানতে ফেসবুক এ আমাদের সাথে থাকুন

আমরা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন খবর সংগ্রহ করে থাকি আপনারই জন্য। আমরা চাই আপনারা জানুন "সদ্য সংবাদ, সবার আগে"।