জাতীয় প্রচ্ছদ

মজিবর রহমান শেখ, কবর খোঁড়াই যার নেশা!

মৃত ব্যক্তির কবর খোঁড়াই তার নেশা। মৃত্যুর সংবাদ শুনলেই ছুটে যান সেখানে আর কবর খোঁড়ার কাজ করে থাকেন। হাদিসে বলা আছে ‘কুল্লু নাফছিন যাইকাতুল মাউত’ সকল প্রাণিকে মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করতে হবে। মুসলিম ধর্মের রীতি অনুযায়ী মৃত ব্যক্তিকে কবর দেওয়ার বিধান রয়েছে। সে কবর খোঁড়ার কাজটি নিষ্ঠার সাথে বেছে নিয়েছেন নড়াইলের লোহাগড়া পৌর সভার কলেজ পাড়ার মজিবর রহমান (৫৫) শেখ। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নড়াইলের লোহাগড়া পৌর সভার কলেজ পাড়ার মজিবর রহমান শেখ গত প্রায় ১০ বছরে ২৮৬টি কবর খোঁড়ার কাজ করেছেন।

মজিবর শেখ বলেন, ‘১০ বছর পূর্বে আমার এক আত্মীয় মারা যাওয়ার খবর শুনে আমি তাকে দেখতে যাই। তখন আমি তার জন্য কবর খোঁড়ার কাজটি করি। সেই থেকে কবর খোঁড়ার প্রতি আমার অন্য রকম আগ্রহ জন্মায়।  যখন আমি শুনেছি কেউ মারা গেছে তখনই সেখানে গিয়ে কবর খোঁড়ার কাজ করেছি।  এ পর্যন্তু আমি ২৮৬টি মৃত ব্যক্তির জন্য কবর খুঁড়েছি। বাকি জীবন আমি এই কাজটিই করতে চাই।’ মজিবর শেখ পেশায় একজন দিন মজুর। তবে কাজের মাঝে যখন সংবাদ পান কোনো ব্যক্তি মারা গেছেন তখনই ছুটে যান হাতের কাজ ফেলে। হাতে তুলে নেন কোদাল। শুরু করেন কবর খোঁড়ার কাজ। আল্লাহর সন্তুষ্টি ও পরকালে মুক্তি লাভের আশায় বিনা পারিশ্রমিকে তিনি এই মহান কাজ করে যাচ্ছেন। একই এলাকার রফিকুল ইসলাম, শাহ আলম বলেন, ‘আমাদের এলাকাসহ আশপাশের যেকোনো এলাকায় কোনো ব্যক্তির মৃত্যু হলে আর সে সংবাদ মজিবর শেখের কানে পৌঁছালে তাৎক্ষণিক তিনি ছুটে যান সেখানে। আর পরম শ্রদ্ধায় তিনি ওই মৃত ব্যক্তির কবর খোঁড়ার কাজ করে থাকেন বিনা পারিশ্রমিকে। তার এ কাজ অত্যন্ত প্রশংসনীয় বলেও জানান তারা।

ফেসবুক মতামত

জন মত দিয়েছেন

Show Buttons
Hide Buttons

সর্বশেষ খবর জানতে ফেসবুক এ আমাদের সাথে থাকুন

আমরা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন খবর সংগ্রহ করে থাকি আপনারই জন্য। আমরা চাই আপনারা জানুন "সদ্য সংবাদ, সবার আগে"।


সর্বশেষ খবর জানতে ফেসবুক এ আমাদের সাথে থাকুন

আমরা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন খবর সংগ্রহ করে থাকি আপনারই জন্য। আমরা চাই আপনারা জানুন "সদ্য সংবাদ, সবার আগে"।