আন্তর্জাতিক

২০টি ‘জিনের’ সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক এক নারীর!

গত ১২ বছরে ২০টি ‘জিনের’ সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের দাবি করেছেন ব্রিটেনের ব্রিস্টল শহরের এক নারী। শুধু তাই নয়, তাদের প্রশংসায় রীতিমতো পঞ্চমুখ হয়েছেন তিনি। অ্যামেথিস্ট রেলম (২৭) নামের ওই নারী সম্প্রতি আইটিভি নামে ব্রিটেনের একটি টেলিভিশন চ্যানেলে উপস্থিত ছিলেন। সেখানে ‘দ্য মর্নিং’ নামে একটি অনুষ্ঠানে বেশ খোলাখুলিভাবে ‘জিনের’ সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের কথা তুলে ধরেন। পেশাদার জীবনেও আধ্যাত্মিক বিষয়াবলি নিয়ে নাড়াচাড়া করেন রেলম। দ্য মর্নিং অনুষ্ঠানে রেলম জানান, ১২ বছর আগে বাগদত্তার সঙ্গে ব্রিস্টলে নতুন বাড়িতে ওঠেন তিনি। সেখানে যাওয়ার পরই আস্বাভাবিক কিছুর অস্তিত্ব টের পান। ঘটনার বর্ণনা করতে গিয়ে রেলম জানান, তাঁর ওপর প্রথমে একটি শক্তি ভর করে। তারপর শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন তিনি। এ সময় তিনি সম্পূর্ণ নিরাপদ অনুভব করছিলেন। তবে তিনি ওই ‘জিনদের’ কখনোই দেখতে পাননি। শুধু অনুভব করেছেন।

রেলম আরো জানান, একটি ‘জিনের’ সঙ্গে তাঁর তিন বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। পরে বিষয়টি তাঁর সঙ্গীর কাছে ধরা পড়ে। এর পর থেকেই বিভিন্ন ‘জিনের’ সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। একপর্যায়ে তাঁর অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ার সম্ভাবনাও দেখা দেয়। তবে গবেষকরা রেলমের এ ধরনের দাবি একেবারেই উড়িয়ে দিয়েছেন। তাঁরা বলছেন, দৃষ্টিভ্রম অথবা ঘুমের ভেতর অস্বাভাবিকতার কারণে এমনটা অনুভব হতে পারে। রেলমের দাবির পর এ বিষয়ে কথা বলেছেন আত্মাগবেষক আলেকজান্দ্রা হোলজার। তিনি জানান, যারা জিনের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের দাবি করেছে, তারা শরীরে চাপ অনুভব করে। এ ছাড়া জিনের উপস্থিতিতে খুবই শীতল হয়ে যায় ঘরের পরিবেশ।

ফেসবুক মতামত

জন মত দিয়েছেন

Show Buttons
Hide Buttons

সর্বশেষ খবর জানতে ফেসবুক এ আমাদের সাথে থাকুন

আমরা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন খবর সংগ্রহ করে থাকি আপনারই জন্য। আমরা চাই আপনারা জানুন "সদ্য সংবাদ, সবার আগে"।


সর্বশেষ খবর জানতে ফেসবুক এ আমাদের সাথে থাকুন

আমরা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন খবর সংগ্রহ করে থাকি আপনারই জন্য। আমরা চাই আপনারা জানুন "সদ্য সংবাদ, সবার আগে"।